Uddokta.com

উদ্যোগের আদ্যোপান্ত

উদ্যোক্তাদের যে ৭ টি বই অবশ্যই পড়া উচিত

More Share, More Care!

যখন একটি ব্যবসায় পরিচালনা করার জন্য অর্থাৎ একটি ব্যবসায়ের প্রতিষ্ঠা করার জন্য আপনার মধ্যে উদ্যোক্তা হওয়ার চিন্তাধারা চলে আসবে তখন অবশ্যই আপনার মধ্যে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠে আসবে। এই প্রশ্নগুলোর মধ্যে অন্যতম একটি প্রশ্ন হচ্ছে উদ্যোক্তা কারা? তবে সাধারণভাবে উদ্যোক্তা হচ্ছে কার্যকরী ও সৃজনশীল শক্তি ব্যবহার করার মধ্য দিয়ে যে উর্ধ্ব গ্রহণ করা হয় এবং তার সম্পন্ন করার জন্য যে প্রতিজ্ঞা গ্রহণ করা হয় তাকেই উদ্যোক্তা বলা হয়। কিন্তু এখানে উদ্যোক্তার কাজ সীমাবদ্ধ নয়। তাই একজন উদ্যোক্তা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য অবশ্যই সঠিক জ্ঞান অর্জন করা প্রয়োজন। আপনার স্বপ্ন পূরণের জন্য অবশ্যই আপনি উদ্যোক্তাদের বিভিন্ন অনুপ্রেরণামূলক বই পড়তে পারেন।

কিন্তু এখন আপনি ভেবে পাচ্ছেন না যে কাদের বইগুলো আপনাকে অনুপ্রাণিত করবে উদ্যোক্তা হতে এবং যে বইগুলো পড়লে আপনারা অল্প সময় উদ্যোক্তা হওয়ার সকল বিষয়গুলো সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন। তাই আপনি যাতে একজন সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য সঠিক উপায় গুলো খুঁজে পান এবং সঠিক জ্ঞান অর্জন করতে পারেন তার জন্য উদ্যোক্তাদের যে ৭টি বই অবশ্যই পড়া উচিত সেগুলো সম্পর্কে অবগত করছি। কারণ আপনি যদি এ ধরনের বইগুলো সময়ের মধ্যে পড়তে পারেন তাহলে অবশ্যই অল্প সময়ে একজন সফল উদ্যোক্তা হতে পারবেন। এছাড়া আমরা সকলেই জানি যে কোন সফলতার পেছনে রয়েছে অনুপ্রেরণা এবং কঠোর পরিশ্রম। তাই আপনি চাইলে এ ধরনের বইগুলো অধ্যায়ন করতে পারেন।

উদ্যোক্তাদের যে ৭ টি বই অবশ্যই পড়া উচিত/ উদ্যোক্তাদের বই কেন পড়া উচিত

১. রিচ ড্যাড পুওর ড্যাড

রবার্ট কিয়োসাকি রিচ ড্যাড পুওর ড্যাড বইটি প্রকাশ করেছেন ১৯৯৭ সালে। এই বইটি কতটা বিখ্যাত তা বর্তমানে নতুন করে জানানোর মতো কিছু নেই। তবুও বলছি প্রত্যেক উদ্যোক্তার এই বইটি একবার হলেও পড়া উচিত। কারণ এই বইটিতে ধনী এবং মধ্যবিত্তের চিন্তাধারা কেমন হয়ে থাকে এবং তাদের মধ্যে কোন বিষয়গুলো পার্থক্য রয়েছে এ বিষয়গুলো নিয়ে লেখা হয়েছে। সাধারণত একটি মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তানদের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা দেয়ার পর তাকে চাকরি করার জন্য বলে থাকেন। কারণ উদ্যোক্তা হওয়ার পেছনে যেমন সফলতা রয়েছে ঝুঁকি রয়েছে। আর এই ঝুঁকি মধ্যবিত্ত পরিবারের বাবা তার সন্তানদের নিতে দেন না।

বিপরীতে একজন উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানকে কখনো চাকরির জন্য বলা হয় না। ছোটবেলা থেকেই তাদেরকে এমনভাবে শিক্ষা দেয়া হয় যাতে করে তারা বড় হয়ে একজন ব্যবসায়ী অর্থাৎ উদ্যোক্তা হতে পারে। কারণ সেই উচ্চবিত্ত পরিবারের বাবা ঝুঁকি গ্রহণ করতে জানে এবং সঠিকভাবে ঝুঁকি গ্রহণ করার বিপরীতে যে সফলতা রয়েছে সে বিষয়টি সম্পর্কে অবগত থাকেন। এছাড়া উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানদের জীবন যাপন ব্যবস্থা সবসময় ইন্ডিপেন্ডেন্ট হয়ে থাকে। কারণ ছোটবেলা থেকেই তাদেরকে ইন্ডিপেন্ডেন্টভাবে বড় করা হয়।সুতরাং আপনি এই বইটি পড়ার মধ্য দিয়ে তাদের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারবেন এবং সেই সাথে আপনি কেন ইনভেস্টমেন্ট করে সফলতা অর্জন করতে পারবেন এবং কেন আপনি ইনভেসমেন্ট করার রিক্স গ্রহণ করবেন এ বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হতে পারবেন।

২. দ্য পাওয়ার অফ নাউ

দ্য পাওয়ার অফ নাও বিশ্বের মধ্যে যতগুলো উদ্যোক্তাদের বই রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় এবং বিখ্যাত একটি বই। এই বইটি সকল উদ্যোক্তাদের অধ্যয়ন করা উচিত। কারণ এই বইটিতে রয়েছে বর্তমান সময়কে কাজে লাগিয়ে কিভাবে যেকোনো পরিস্থিতিতে সুখ, শান্তি, এবং স্বচ্ছলতা বজায় রেখে চলা যায়। বিশেষ করে বর্তমান সময়ের সবচেয়ে মানসিক সমস্যা হচ্ছে ডিপ্রেশন। তাই আপনারা যারা মরণশীলতা গড়ে তুলতে চান এবং দৈনন্দন জীবনের চাপ দূরে রাখতে চান তাদের জন্য অবশ্যই এই বইটি সেরা।

এই বইটি পড়ার মাধ্যমে আপনি নিজেকে খুঁজে পাবেন এবং আপনার জীবনের প্রতিটি মুহূর্ত কাজে লাগাতে পারবেন। কারণ এই বইটি ডিপ্রেশন দূর করতে আপনাকে সাহায্য করবে। একটি জিনিস জানলে অবাক হবেন যে এই বইটির লেখক একার্ট টলি নিজেই তরুণ বয়সে বিষন্নতা, হতাশা এবং অস্থিরতায় ভুগছিলেন। তার জীবনে এমন অনেক সময় এসেছে যখন তিনি আত্মহত্যা করতে চেয়েছেন। তবে একসময় তার জীবনে এমন কিছু ঘটেছে যার মধ্যে তিনি নিজেকে খুঁজে পেয়েছেন এবং নিজের মধ্যে বদল আনতে পেরেছেন। আর এ বিষয়টি তার নিজের বুঝতে সময় লেগেছিল প্রায় কয়েক বছর। তিনি তার জীবন দিয়ে বিভিন্ন ধাপে এই ধরনের বিষয়গুলো উপলব্ধি করতে পেরেছেন এবং আবিষ্কার করতে পেরেছেন। সুতরাং আপনাদের হতাশা দূর করার জন্য অবশ্যই দ্যা পাওয়ার অফ নাও বইটি পড়া উচিত।

৩. মিরাকল মর্নিং

মিরাকল মর্নিং বইটি লিখেছেন হাল এল্রোড। তিনি এমন একজন মানুষ যে কিনা মৃত্যুকে জয় করেছে। আল্ট্রা ম্যারাথন দৌড়বিদ এবং মোটিভেশনাল স্পিকার হিসেবে তিনি সবার মাঝে পরিচিত আছেন। তার জীবনের এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক রয়েছে যা তিনি তার বইয়ে তুলে ধরেছেন। মূলত এই বইটি রচনা করা হয়েছে মর্নিং এর অর্থাৎ সকালের অভ্যেস গুলো সম্বন্ধে। কারণ আপনি যদি সকালের অভ্যাসগুলো পরিবর্তন করতে পারেন তাহলে অবশ্যই আপনার জীবনে মিরাকল করতে পারে।

তাই আপনার জীবনে পরিবর্তন আনার জন্য এবং আপনি যদি একজন সফল উদ্যোক্তা হতে চান তাহলে সবার আগে আপনার মর্নিং রুটিন কেমন হওয়া উচিত এবং মর্নিং এ আপনার কি করা উচিত এই সম্পর্কে জেনে নেওয়া জরুরী। কারণ আপনার জীবনের সকালের শুরুটা যদি হয় ভালো কিছু দিয়ে তাহলে দিনের শেষ সময়টুকু ভালোভাবে যাবে। একপর্যায়ে আপনার জীবনে মিরাকল এর মত সফলতা বয়ে আনবে। সুতরাং এই বিষয়টিকে হাইলাইট করে মিরাকল মর্নিং বইটি লেখা হয়েছে। 

৪. আনলিমিটেড পাওয়ার

আপনি কিভাবে আনলিমিটেড পাওয়ারের অধিকারী হবেন। একজন সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য আপনাকে কেন অসীম পাওয়ার অধিকারী হতে হবে। এবং আপনার অকেজো চিন্তা ধারণা ধরুন গুলিকে ঘিরে থাকা থেকে আপনি কিভাবে রক্ষা পাবেন মূলত এই বিষয়টি নিয়ে আনলিমিটেড পাওয়ার বইটি রচনা করা হয়েছে। স্বভাবতই আমরা আমাদের স্বপ্নপূরণের জন্য সকল শক্তির অধিকারী হতে চাই। তাই আপনি যাতে একজন আনলিমিটেড পাওয়ার হিসেবে পরিকল্পনা প্রণয়ন করতে পারেন এবং তা সঠিকভাবে প্রয়োগ করতে পারেন সেই বিষয়টি এই বইটিতে স্পষ্টভাবে তুলে ধরা হয়েছে। 

এখানে চিন্তাভাবনা, টাকা বিষয়ক জ্ঞান, সুস্থভাবে জীবন-যাপন সহ আপনার উদ্যোক্তা জীবনের সকল দিকগুলো সম্পর্কে বৈজ্ঞানিক সূত্র এবং বাস্তব উদাহরণ দেয়া হয়েছে। এ বইটি পড়লে আপনার মাঝে পরিবর্তন আসতে ১০০% বাধ্য। আর এর মাধ্যমে আপনি একজন সফল উদ্যোক্তা হতে কয়েকধাপ এগিয়ে যাবেন।

১৯৮৬সালে আলটিমেট পাওয়ার বইটি রচনা করেছেন সেলফ -হেল্প এর কর্ণধার এবং মোটিভেশনাল স্পিকার টনি রবিন্স। বর্তমান সময়ে তরুণদের কাছে এই বইটি একটি অনুপ্রেরণামূলক বই। 

 

৫. জিরো টু ওয়ান

 

প্রতিটি মানুষের সফলতার পেছনে রয়েছে কিছু ব্যক্তির অনুপ্রেরণা। ঠিক তেমনি একটি অনুপ্রেরণা থেকে জিরো টু ওয়ান বইটি রচনা করা হয়েছে এবং এই বইটি যে বাস্তবতার সাথে অতপ্রত ভাবে জড়িত সে সম্পর্কে অবগত করা হয়েছে। কারণ বিশ্ব বিখ্যাত আর্থিক সেবা লেনদেন সেবা দানকারী প্রতিষ্ঠান পেপাল এর পাঁচজন প্রতিষ্ঠাতার মধ্যে অন্যতম একজন হচ্ছে পিটার থেইল। তিনি একটি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদের ব্যবসায় সফলতার উপায় গুলো সম্পর্কে জানিয়েছিলেন। এদের মধ্যে একজন ছাত্র তার কথাগুলো অর্থাৎ উপদেশগুলো মনোযোগ সহকারে শুনছিলেন এবং সেই উপদেশগুলো নোট করেছিলেন।

এক সময়ে সেই ছাত্র তার পরামর্শ অনুসারে ব্যবসায় উদ্যোগ গ্রহণ করেন এবং সফলতা অর্জন করেন। তখন ওই ছাত্রের সাথে লেখক যোগাযোগ করে জিরো টু ওয়ান বইটি রচনা করেন। মূলত একজন উদ্যোক্তা জিরো থেকে কিভাবে ওয়ান হয়ে উঠতে পারে এর সকল টেকনিক এখানে ধরা হয়েছে।

 

৬. হাউ টু উইন ফ্রেন্ডস এন্ড ইনফ্লুয়েন্স পিপল

হাউ টু উইন ফ্রেন্ডস এন্ড ইনফ্লুয়েন্স পিপল নামক এই বইটি প্রকাশ করা হয় ১৯৩৭ সালে। এই বইয়ের লেখক হচ্ছেন আমেরিকার বিখ্যাত লেকচারার ও লেখক  ডেল কার্নিগে। মূলত এই বইটি লেখা হয়েছে উদ্যোক্তারা কনটেরিয়াস লিডারশিপ এর রোল কিভাবে প্লে করবে তার ওপর। এবং একজন উদ্যোক্তার মধ্যে যে সকল গুনগুলো থাকা উচিত সে বিষয়ে সম্পর্কে।

ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করার জন্য অবশ্যই একজন উদ্যোক্তার মধ্যে কিছু বিশেষ গুণ থাকতে হয়। আর এই গুণগুলো ব্যবহার করার মধ্য দিয়ে একজন ব্যবসায়ী তার ব্যবসার সফলতা অর্জন করতে পারে। তাই হাউ টু উইন ফ্রেন্ডস এন্ড ইনফ্লুয়েন্স পিপল বইটিতে উদ্যোক্তাদের গুণ তুলে ধরা হয়েছে।

 

৭. বিলিয়ন ডলার স্টার্টআপ

মুনির হাসান বিলিয়ন ডলার স্টার্ট আপ বইটি লিখেছেন। এ বইটিতে বিশ্বের ১৩ টি “‘ইউণিকর্ন” বা “বিলিয়ন ডলার কোম্পানি”র শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত প্রকাশ করা হয়েছে। লেখক অত্যন্ত সুন্দরভাবে উপস্থাপনার পাশাপাশি প্রতিটি গল্পের শেষে “বিশেষ ঘটনা”গুলো সম্পর্কে পৃথকভাবে আলোকপাত করেছেন এবং ওই অধ্যায় থেকে কী কী শেখার আছে, তা তিনি লিখে দিয়েছেন।

পেপ্যাল, এয়ারবিএনবি, গ্রামীনফোনসহ প্রতিটি উদ্যোগের শুরুর পেছনের গল্প, শুরুর দিকের স্ট্রাগল ও সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে কীভাবে উদ্যোক্তারা এরকম বিলিয়ন ডলার কোম্পানি তৈরি করেছেন, তা জানতে অবশ্যই আপনার এই বইটি পড়া উচিৎ। আপনার দৃষ্টিভঙ্গি সীমাহীন হবে, গ্যারান্টি!

 

 

FAQ

কেন আপনি উদ্যোক্তাদের বই পড়বেন?

একজন সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য অবশ্যই এমন কিছু কৌশল রয়েছে যা অবলম্বন করলে আপনি সহজেই সফল উদ্যোক্তা হিসেবে পরিচিতি লাভ করতে পারেন। তাই অবশ্যই উদ্যোক্তাদের বই অধ্যায়ন করা উচিত।

উদ্যোক্তাদের বই পড়লে কি জানা যাবে?

আপনি যদি একজন উদ্যোক্তার বই পড়েন তাহলে সেই উদ্যোক্তা হতে আপনার মধ্যে অনুপ্রেরণা তৈরি হবে এবং ওই ব্যক্তির সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য যে সকল কঠোর পরিশ্রম এবং কৌশল অবলম্বন করেছেন সে সম্পর্কেই জেনে নিতে পারবেন।

একজন উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য কি উদ্যোক্তাদের বই পড়া বাধ্যতামূলক?

না, বিষয়টি এমন নয়। কারণ একজন সফল উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য আপনাকে যে বই পড়েই বা সফল উদ্যোক্তা হতে হবে এমনটি নয়। তবে আপনি যদি একজন সফল উদ্যোক্তার বই অধ্যায়ন করেন তাহলে সেখান থেকে আপনি দৃষ্টান্তমূলক অনেক কিছু শিখতে পারবেন এবং অল্প সময়ের মধ্যে প্রযুক্তি ব্যবহার করার মধ্যে দিয়ে ব্যবসায় সফলতা পেতে পারেন।

উদ্যোক্তাদের বই গুলো কোথায় পাওয়া যাবে?

উদ্যোক্তাদের বইগুলো সংগ্রহ করার জন্য আপনি বিভিন্ন ধরনের লাইব্রেরীতে খোঁজ করতে পারেন অথবা অনলাইন বিভিন্ন লাইব্রেরীতে খোঁজ করতে পারেন।

শেষ কথা

যেকোনো কাজ সম্পন্ন করার জন্য অবশ্যই কঠোর পরিশ্রমের সাথে সাথে অনুপ্রেরণার প্রয়োজন। আপনি যদি একজন সফল উদ্যোক্তা হতে চান তাহলে অবশ্যই উদ্যোক্তাদের যে ৭টি বই অবশ্যই পড়া উচিত তা পড়ে নিতে পারেন। কারণ বিশ্বের মধ্যে এমন কিছু উদ্যোক্তা এবং সফল ব্যবসায়ী রয়েছে যাদের জীবন কাহিনী শুনলে এবং সফলতার পেছনের যে অধ্যাবসায় রয়েছে সেগুলো আপনি জানলে অবশ্যই আপনি আপনার ব্যবসায়ী প্রয়োগ করতে পারবেন এবং একজন সফল উদ্যোক্তা হতে পারবেন। তাই অনুপ্রেরণামূলক এই সকল উদ্যোক্তাদের বই অবশ্যই সকল উদ্যোক্তাদের পড়ে নেওয়া উচিত এবং জেনে নেয়া উচিত। আপনি যদি উদ্যোক্তা সম্পর্কে আরো কিছু জানতে চান তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করতে পারেন। ধন্যবাদ।


More Share, More Care!

Leave a Reply Cancel reply